Join Our Telegram Group to connect with bigger community. Join Now!

Table of Content

কেমন ছিল অ্যাটাক অন টাইটান এনিমে? Attack on Titan - Peak Fiction

ফাইনালি শেষ হওয়ার খুশি, না একঝাক কুড়ে খাওয়া ব্যথার আগমন...?

লিখেছেন - শামীম রেজাকেমন ছিল অ্যাটাক অন টাইটান এনিমে? Attack on Titan - Peak Fiction

Attack On Titan আমার অন্তরের খুব কাছের এক ফিকশন। মনে আছে, তখন আমি অ্যানিমে জগতে নতুন। সালটা ১৯। অনেকের বলাবলিতে এটা শুরু করি। এরেন এপিসোড ৫ এ মারা যায়। খুব হতাশ হইছিলাম। ফেসবুকেও পোস্ট দিয়েছিলাম, সে মারা যাওয়াতে আর দেখবো না বলে। কেন দেখবো বলুন..? 

যে ছেলেটা তার চোখের সামনেই তার মাকে হারাতে দেখলো, পারেনা কোনকিছু ঠিকঠাকভাবে করতে, শারীরিকভাবে দূর্বল হওয়া সত্ত্বেও মায়ের মৃত্যুর প্রতিশোধ নেয়ার জন্যে এক দলে যোগ দেয়। চিয়ার করতে থাকলাম তাকে, যেন সে আমাকেই প্রতিনিধিত্ব করছে। সে জিতবে এই আশায় দেখছি অথচ সেই কিনা মাত্র ৫ এপিসোডেই মারা গেলো!!!!!! 

অনেকেই বললো, দেখতে থাকো সে মরেনি। মরেনি সে ঠিকই কিন্তু আমাকে মুখোমুখি করেছে অসাধারণ এক অভিজ্ঞতার। যেটা থেকে বের হওয়া সম্ভব ছিল না, আর না থাকবে কখনো ভবিষ্যতে। টানা সিজন ৩ শেষ করে নতুন সিজনের অপেক্ষায় তখন। 

অবশেষে ২১ এ নতুন সিজন আসলো। কয়েক এপিসোড দেখেই স্পয়লারের ভয়তে এটার মাঙ্গা পড়া শুরু করি। মাসে একটা চ্যাপ্টারে আসতো। আমি যখন শুরু করি, আর মাত্র ৩ টা চ্যাপ্টার আসা বাকি। বুঝলাম, অপেক্ষা করার কষ্টটা। বিভিন্ন ডিসকাশন, থিউরির উপর থিউরি নিয়ে মাথাব্যথা কত কি! সেখানেই কি শেষ?? লিস্টের, বিভিন্ন গ্রুপের লোকদের থেকে জানা যে, তারা সেই আগে থেকেই এটা নিয়ে উন্মাদ। স্টোরির একেকটা টুইস্ট, টার্নস যেন সবাইকে হতভাগ করে ছেড়েছে প্রতিনিয়ত। সেটার ফাইনাল সমাপ্তি আজ হতে যাচ্ছে। যদিও মাঙ্গায় তা হয়ে গেছে আগেই!

এই জিনিসটা আমার আবেগের অনেকখানি জায়গা জুড়ে আছে। ফাইনাল চ্যাপ্টার এপ্রিলের ৯ তারিখে এসেছিল অথচ আমি স্পয়লার আর লিকের ভয়তে পুরো ৯ দিন নেটে ছিলাম না। পেলাম কি? বাজে এক এন্ডিং!

তবুও আমার মতো অনেকের এই অ্যানিমেতে আসক্ত হওয়ার ফিকশনটি অমর হয়ে থাকবে। বাজে হয়েও যেন মাথা উচিয়ে থাকবে সবসময়। গুডবায় এরেন, গুডবায় অ্যাটাক অন টাইটান। পরিশেষে, ধন্যবাদ ইসায়ামা, ধন্যবাদ উইট, মাপ্পা।

Post a Comment